সিরিজে সমতা আনল ভারত

0

শেষ ৬ বলে জয়ের জন্য দরকার ছিল ২৩ রান। প্রথম তিন বলে এলো ১৩ রান। ম্যাচে তখন বাড়তি রোমাঞ্চ। কিন্তু শার্দুলের শেষ তিন বলে মাত্র ১ রান নিতে পারল ইংল্যান্ড। ভারত পেল ৮ রানের রোমাঞ্চকর জয়।আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৮৫ রান করে ভারত। জবাবে ইংলিশরা থামে ১৭৭ রানে। তাদের পড়ে ৮ উইকেট। সিরিজে এই প্রথম আগে ব্যাট করে জিতল কোনো দল। পাঁচ ম্যাচের সিরিজে এখন ২-২ সমতা। একই মাঠে আগামী শনিবার সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি হবে দল দুটি।আগে ব্যাট করতে নামা ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৭ রানের ঝলমলে ইনিংস খেলেন প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ব্যাট করতে নামা সূরযকুমার যাদব। ৩১ বলের ইনিংসে তিনি হাকান ছয়টি চার ও তিনটি ছক্কা। আগের দুই ম্যাচে দারুণ ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকা ভারত অধিনায়ক কোহলি এদিন জ্বলে উঠতে পারেননি। মাত্র ১ রান করে রশিদের বলে স্টাম্পিংয়ের শিকার।১৮ বলে পাচ চার ও এক ছক্কায় ৩৭ রান করেন শ্রেয়াস আয়ার। ৩০ রান করেন রিশব পন্থ। রোহিত শর্মা ১২ ও লোকেশ রাহুল ১৪ রান করেন। ৪ বলে ১০ রানে অপরাজিত ছিলেন শার্দুল ঠাকুর।জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নামা ইংল্যান্ডের শেষ চার ওভারে প্রয়োজন ছিল ৪৬ রান। আশা হয়ে টিকে ছিলেন স্টোকস ও মর্গ্যান। তবে ১৭তম ওভারে প্রথম দুই বলে এই দুজনকেই ফিরিয়ে দেন শার্দুল। ২৩ বলে ৪টি চার ও ৩ ছক্কায় ৪৬ রান করেন স্টোকস।শেষ ওভারে ২৩ রানের সমীকরণে অবশ্য জমে ওঠে লড়াই। শার্দুলের প্রথম বলে আসে ১ রান। পরের দুই বলে চার ও ছক্কা মারেন আর্চার। এরপর শার্দুল দেন দুটি ওয়াইড। ৩ বলে চাই ১০। চতুর্থ বলে আর্চার নিতে পারেন ১ রান। পরের বলে আউট হয়ে যান জর্ডান। শেষ বলে ব্যাটই ছোঁয়াতে পারেননি আর্চার। জয়ের আনন্দে ভাসে গোটা ভারত।ইংল্যান্ডের হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪০ রান করেন ওপেনার জেসন রয়। ২৭ বলের ইনিংসে তিনি হাকান ছয়টি চার ও একটি ছক্কা। ৮ বলে দুই চার ও এক ছক্কায় ১৮ রানে অপরাজিত থাকেন আর্চার। ৫৭ রানের ঝলমলে ইনিংসের সুবাদে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন ভারতের সূর্যকুমার যাদব।

Share.

About Author

Leave A Reply

hioidind